ভারতের অর্থনীতিকে পঙ্গু করতে অাই এস অাইয়ের জাল নোট অপারেশন

মৃত্যুঞ্জয় সরদার :ভারতের অর্থনীতিকে বিপর্যস্ত ও পঙ্গু করতে গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই ভারতে জাল নোট ঢোকানোর যে অপারেশন জারি রেখেছে তা অব্যাহত রয়েছে। মোদী আমলে নতুন ৫০০-২০০০ টাকার জাল নোট ছাড়তে সক্রিয় হয়েছে আইএসআই। বাংলাদেশ ও নেপাল হয়ে ভারতে জাল নোট ছড়িয়ে দেওয়ার অপারেশন বিভিন্ন মাফিয়া গ্যাংয়ের হাত রয়েছে বলে মনে করছেন পর্যবেক্ষক মহল। 
শেখ হাসিনার আমলে বাংলাদেশ থেকে জাল নোট ঢোকানোর ক্ষেত্রে বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড বা বাংলাদেশ গোয়েন্দারা তেমন ভাবে ভারতকে সাহায্য করতে পারেননি এটা ঠিক। তবে বর্তমানে বাংলাদেশ সীমান্তে কড়াকড়ি পাশে রাজশাহী, চাপাইয়া নবাবগঞ্জ কড়া নজরদারি চালাচ্ছে শেখ হাসিনা প্রশাসন। উল্লেখ্য, প্রতি বছর এদেশে  কোটি কোটি টাকার জাল  নোট পাচার হয় নেপাল ও বাংলাদেশ থেকে। এমনকি মায়ানমারকেও রুট করার চেষ্টা চালাচ্ছে জাল নোট কারবারিরা। 
ভারতে যে জাল নোট ঢোকে তার ১০ শতাংশই ঢোকে পশ্চিমবঙ্গ ও উত্তর -পুর্বের বিভিন্ন রাজ্যের বাংলাদেশ সীমান্ত দিয়ে। টাকার লোভে  জাল নোট চক্রের ফাঁদে পা দিচ্ছেন সীমান্তবতী এলাকার কিছু বেকার যুবকরা।পশ্চিমবঙ্গের মালদহ জেলাকে জাল  নোট ঢোকানোর মুল রুট বলে মনে করা হচ্ছে। চলতি বছরে এখনও পর্যন্ত বিএসএফ প্রায় ১  কোটি ৩০ লক্ষ টাকার জাল নোট উদ্ধার করছে। 
সরকারি তথ্য মতে  ২০১০সালের জাল নোট পাচার চক্রের ৪৬ জন পান্ডা  ধরা পড়ে। মামলা হয় ১৮টি ,উদ্ধার হয়েছে ১৪ লক্ষ ১৩ হাজার ৫০০টাকা।২০১১ সালে জাল নোট নিয়ে ১৭টি মামলা হয়,গ্রেফতার করা হয় ২৬ জন পান্ডা ,উদ্ধার হয় ১ কোটি ৪১ হাজার ৫০০টাকা।২০১২ তে উদ্ধার হওয়া টাকার পরিমাণ কম নয়। ১কোটি ৯ লক্ষ ৭১ হাজার ৫০০টাকা,১০টি মামলা হয়,২০ জন গ্রেপ্তার।২০১৪,২০১৫,২০১৬,২০১৭ সালের বহু কোটি জাল নোট ধরা পড়েছে। 
গোয়েন্দা ও পুলিশ সুত্রের খবর নেপাল, বাংলাদেশ সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে যে পরিমাণ টাকা ঢোকে তার খুব নগন্য অংশই ধরা পড়ে। সুত্রের খবর অনুযায়ী জাল নোটের সিংহ ভাগ পাচার করতে চক্রের লোকেরাই পুলিশকে খবর দিয়ে চুনোপুটি কয়েক জনকে ধরিয়ে দেয়। কলকাতা জালনোট কারবারীদের বড় ঘাঁটি নিউমার্কেট চত্বরে। কলকাতা পুলিশের এসটিএফআই এলাকার   বিভিন্ন হোটেল ও অতিথিশালা থেকে  বহু  বাংলাদেশী  ধরেছে  প্রচুর  জাল নোট সমেত..এই ভাবে ভারতীয় জাল নোট পুলিশ ও প্রশাসনের পাশাপাশি বি এস এফ  এর  ও মাথা ব্যথার কারণ হয়ে উঠেছে.
Share on Google Plus Share on Whatsapp



0 comments:

Post a comment