ঘুমের মধ্যে স্ত্রীকে ধর্ষণ করে তা ভিডিও করতেন স্বামী, তারপর… The husband used to rape the wife during sleep

 rape



মহিলারা কোথায় নিরাপদ? রাতের অন্ধকারে রাস্তাঘাটে তো দূর অস্ত, নিজের বাড়িতেই চরম হেনস্তার শিকার হতে হয় মহিলাদের। আর এ ছবি শুধু এ দেশেরই নয়, গোটা বিশ্বেই ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে এমন উদাহরণ। এবার সামনে এল ব্রিটেনের এক ঘটনা। দিনের পর দিন ঘুমের মধ্যে স্ত্রীর উপর যৌন অত্যাচার চালিয়ে যেতেন স্বামী। শুধু তাই নয়, স্ত্রীর ঘুমের সুযোগ নিয়ে তাঁকে ধর্ষণের ঘটনা ভিডিও করতেন। এই অপরাধের জন্য ব্যক্তিকে ৯ বছরের কারাবাসের শাস্তি দিল আদালত।

গত দশ বছর স্বামীর সঙ্গে সংসার করছেন ওই মহিলা। আর পাঁচটা সাংসারিক অশান্তির মতো এই দম্পতির জীবনেও অশান্তি ছিল। কিন্তু এভাবে যে স্বামী তাঁদের যৌনমিলনের ভিডিও মোবাইলে রেকর্ড করছিলেন, তা ভাবনারও অতীত ছিল। তাঁর ঘুমের সুযোগ নিয়ে দিনের পর দিন ধর্ষণ করে গিয়েছেন। এবং সেই ধর্ষণের দৃশ্য ভিডিও করেছেন। ঘটনা চলতি বছরের মার্চ মাসের। একদিন বাড়িতে ভুল করে ফোন ফেলে কাজে বেরিয়ে যান স্বামী। তখনই মোবাইল ঘাঁটতে গিয়ে নিজেদের মিলনের একাধিক ভিডিও দেখতে পান নির্যাতিতা। তারপরই গোটা ঘটনা বুঝতে পারেন তিনি এবং পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তাঁকে ৯ বছরের কারাদণ্ডের সাজা শোনায় আদালত। আদালত অভিযুক্তকে তীব্র ভর্ৎসনা করে।

 মহিলা জানাচ্ছেন, “ভাবতেও পারিনি আমার স্বামী এভাবে আমাকে বোকা বানাবে। সেদিনের পর থেকে আমার ও আমার সন্তানদের জীবন এক্কেবারে পালটে গিয়েছে। ওর মুখও আর কখনও দেখতে চাই না আমি” শেষমেশ স্বামীর শাস্তি হওয়ায় স্বস্তি পেয়েছেন তিনি।


Where are women safe? In the darkness of the night, it is far away from the streets, women have to be victims of extreme harassment. And this picture is not just this country, but it is scattered all over the world. This is an event in front of the UK. Day after day, the husband used to commit sexual harassment on the wife during sleep Not only that, the wife would have had the chance to sleep and video of her rape. The court has sentenced the person to 9 years in prison for the offense.


The woman has been living with her husband for the past 10 years. And like the five civil unrest, this couple's life was in turmoil. But in such a way that the husband was recording his sex video on mobile, he thought it was past. She was raped day after day with her sleeping scope. And videos of that rape scene. The incident is in March this year. One day, the husband made a mistake in the house and left the job. At the same time, mobile phones were seen to see more than one video of their union. After that, he and the police complained to the whole incident. Police arrested the person on the basis of the complaint. The court sentenced him to 9 years in jail. The court strongly rebuked the accused.



 
The woman says, "I did not think my husband would fool me like this in the way. Since that day my life and my children have changed forever. I do not want to see her face anymore. "She finally got relief from her husband's punishment.
Share on Google Plus Share on Whatsapp



0 comments:

Post a comment