মদ্যপকে ছাড়াতে থানায় ঢুকে মার পুলিশকে

 crime_web



মদ খেয়ে রাস্তায় বেলেল্লাপনা করার জন্য দুই যুবককে থানায় ধরে এনেছিল পুলিশ। তাদের ছাড়াতে এসে থানায় ঢুকে তাণ্ডব চালাল তাদেরই সাত শাগরেদ। অভিযুক্তদের গ্রেফতার করেছে পুলিশ। কলকাতার বাগুইআটি থানার এই ঘটনায় আতঙ্কে এলাকার বাসিন্দারাই। তাঁদের কথায়, “পুলিশকেই যদি থানায় ঢুকে মারতে আসে তাহলে আমাদের নিরাপত্তার কী হবে।” ঘটনার শুরু শুক্রবার ভোর সাড়ে চারটেয় বাগুইআটির নারায়ণতলার কলেজ মোড়ে মদ খেয়ে বেলেল্লাপনা করছিল জনা সাতেক যুবক। মর্নিংওয়াক করতে বেরনো পথচারীদের টিটকিরি দিচ্ছিল। প্রতিবাদ জানিয়েও লাভ হয়নি। বাগুইআটি থানার টহলদারি একটি পুলিশ ভ্যান তখন সেখান দিয়ে যাচ্ছিল। রাস্তায় অসভ্যতা করতে দেখে সাবধান করা হয় ওই যুবকদের।

অভিযোগ, সে কথায় কান না দিয়ে তারা অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করে পুলিশ আধিকারিকদের। এরপরেই দুই যুবককে আটক করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ। থানায় কর্তব্যরত এক পুলিশ কনস্টেবল জানিয়েছেন, দুই যুবককে থানায় নিয়ে আসার মিনিট পনেরো পরেই থানায় চড়াও হয় জনা সাতেক যুবক। তারা আটকদের ছাড়িয়ে নিতে যায়। বাধা দিলে গেটের পাহারাদারকে বেধড়ক মারধর করে। কলার ধরে শাসানো হয় কর্তব্যরত কনস্টেবলকে। চাবি কেড়ে লকআপ থেকে অভিযুক্তদের বের করে নিতে চায় মাতাল যুবকরা। ঘটনায় স্তম্ভিত হয়ে যায় পুলিশ। ভোর পাঁচটা নাগাদ থানায় লোকজন কম ছিল। চেঁচামেচিতে দৌড়ে আসেন আরও পুলিশ কর্মী। বেগতিক দেখে পালাতে চেষ্টা করে ওই মদ্যপরা। ধাওয়া করে সাতজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাদের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে।
Share on Google Plus Share on Whatsapp



0 comments:

Post a comment