দলের স্রোতের বাইরে কিছু হয় না,রাজনৈতিক প্রশিক্ষণ শিবিরে বললেন রাজীব হোসেন

স্নেহাশিষ মুখার্জি :মুর্শিদাবাদ পৌরসভার অন্তর্গত ১৬ নম্বর ওয়ার্ড কমিটির রাজনৈতিক প্রশিক্ষণ শিবির ও বনভোজনে  গিয়ে মুর্শিদাবাদের লালবাগ মহকুমার সভাপতি ও দক্ষ সাংগঠনিক নেতা হিসাবে প্রশিক্ষণ বিষয়ক বক্তব্য রাখতে গিয়ে  রাজীব হোসেন বলেন "যদি কেউ মনে করে যে তৃনমূল কংগ্রেসের কর্মী ছাড়া সে আবার কমিশনার হবে এটা তাঁর ভাবনা- চিন্তায় ভুল কারণ  দলের স্রোতের বাইরে কিছু হয় না | আমি এলাম আর আমার কর্মীরা আসবে না ,তাদেরকে দল করার বার্তা দেব না , তাঁদের সদস্যপদ এই ভাবে আর হয়তো থাকবে না ,এই  কারণেই অনেক সমস্যা হচ্ছে এবং অন্য আরোও অনেকের মধ্যে এই প্রবণতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে যা যথেষ্ট উদ্বেগের কারণ বলে তিনি ও তার দল মনে করছেন তাই আমরা চেষ্টা করব যত তাড়াতাড়ি হোক দলীয় আলোচনার মাধ্যমে এই সমস্যা সমাধান করা ,যদি দল করতে হয় তাহলে দলের ছত্রছায়ায় আসতেই হবে যে কোনো মূল্যে কারণ মুখ্যমন্ত্রীর হাতে গড়া দল ও রাজ্যে অন্য কোনো বিরোধী দলকে অসাংবিধানিক ভাবে এক ইঞ্চিও জামিন আমার আমাদের প্রাণ থাকতে ছাড়বোনা" | 

তার এই বক্তব্যঃ প্রসঙ্গে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা মনে করছেন বর্তমানে মুর্শিদাবাদ জেলা রাজনীতিতে কোথায় যেন একটা সংঘঠনিক ক্রাইসিস চলছে প্রাত্তন জেলা সভাপতি মান্নান হোসেনের প্রয়াত হওয়ার পর থেকেই  যে যার মতো জেলার নেতা বলে নিজেকে পরিচয় দিচ্ছে জেলার পার্টি অফিস থেকে ও অন্যত্র ফলত সাধারণ মানুষজন সহ প্রশাসনের নিচু তলার এক অংশ কিছুটা  বিভ্রান্তিতে ও অস্বস্তিতে আছেই, আর এইভাবে যার বুথ লেভেলই কোনো সংগঠন নেই তিনি আবার জেলার নেতা কি ভাবে? প্রশ্ন উঠছে  সাধারণ রাজনৈতিক সচেতন মানুষজনের মনে পাশাপাশি বিরোধী পক্ষদের কাছেও একটা প্রহসন মাত্র যেন ঠিক রূপকথার মুকুটহীন রাজা ..তাই হয়তো দক্ষ দলীয় সাংগঠনিক নেতা হিসাবে রাজীব এই মন্তব্য করেন বলে ধারণা রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের একংশের.. 



তিনি আরোও বলেন  আমাদের নেত্রী  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যে ভাবে পশ্চিমবঙ্গের উন্নয়ন করছেন,যেভাবে তিঁনি রাজ্যের একপ্রান্ত থেকে অন্য প্রাণ্তে অক্লান্ত পরিশ্রম করে ছুটে বেড়াচ্ছেন তা বিরোধীদের কাছে যঠেষ্ট উদ্বেগের কারণ | তাই তাঁদের রাতের ঘুম উড়ে গেছে | ৩৪ বছরের পশ্চিমবঙ্গ আর আজকের পশ্চিমবঙ্গের মধ্যে অনেক ফারাক , তা দিদি চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে | তাই এক শ্রেণীর  বাম রাজনিতীতে বিশ্বাসী মানুষ চোখে সর্ষের ফুল দেখছে , আর এদের ইন্ধনেই কিছু মানুষ লাফাচ্ছে | কারণ যাঁরা বিরোধী তাঁরা তো বিরোধীতা করবেই | উন্নয়ন তাঁদের চোখে পড়ে না,উপরন্তু তাদেরই পরিবারের কেউ না কেউ মুখ্যমন্ত্রীর দেয়া কোনো না কোনো প্রকল্পের সুবিধা নিচ্ছে  | 
উক্ত এই অনুষ্ঠানে লালবাগ মহকুমার সভাপতি রাজীব হোসেন ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন মুর্শিদাবাদ ব্লক সভাপতি মসরত শেখ , শহর সভাপতি রাশু মণ্ডল প্রমুখ ব্যক্তিত্ব বর্গ | 
Share on Google Plus Share on Whatsapp



0 comments:

Post a comment