হাজার চোখের সামনেই ভয়াবহ দুষ্কৃতি তাণ্ডব

NNS : পশ্চিমবঙ্গে তোলাবাজ , সমাজবিরোধি দুষ্কৃতিদের তাণ্ডব বেড়ে চলায় উদ্দ্যেগ বাড়ছে নাগরিক সমাজের মধ্যে | উত্তর ২৪ পরগনায় মধ্যমগ্রামে প্রকাশ্য দিবালোকে সশস্ত্র দুষ্কৃতি তাণ্ডবে হতবাগ সাধারণ মানুষ | তাই ফের খবরের শিরোনামে মধ্যমগ্রাম | এই মধ্যমগ্রামেই কদিন  আগে এক সিভিক ভলেন্টিয়ারের মারে স্কুটার আরোহির মৃত্যুর পর জনরোষ আছড়ে পরেছিলো | এবার দিনদুপুরে গুলি চালানোর ঘটনা ছড়ালো মধ্যমগ্রামে | এক ব্যাক্তির মৃত্যু হোয়েছে | তিঁনি প্রমোটিংয়ের ব্যাবসা করতেন | স্থাণীয় সূত্রের খবর এদিন সকালে তিঁনি এলাকায় একটা সেলুনে বসেছিলেন |

 সেখানেই আচমকা তিনজন দুষ্কৃতি বাইকে চেপে আসে | বোমা মারার পরে গৌতম দে সরকার নামে ঐ প্রোমোটারকে গুলি করে | মোট তিনটি গুলি লাগে গৌতমের দেহে |বুকে ও পিঠে দুই জায়গাতেই গুলি লাগলে মাটিতে লুটিয়ে পরেন তিঁনি .দুষ্কৃতিরা পালিয়ে যায় | ঘটনার পর আহতকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকেরা মৃত বলে জানায় | পুলিশ জানিয়েছে গৌতমবাবু প্রমোটিংয়ের ব্যাবসায় শত্রুতার জেরে খুন হলেন নাকি পিছনে অন্য কোন ঘটনা রয়েছে তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে | তবে যেভাবে একের পর এক ঘটনায় বারবার মধ্যমগ্রাম খবরের শিরোনামে উঠে আসছে তাতে এলাকার আইনশৃঙখলা নিয়ে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছেন সাধারণ মানুষই |

 জানা গেছে যে এদিন মধ্যমগ্রামে হাজার মানুষের সামনে এই দুঃসাহসিক হত্যাকাণ্ডে লিপ্ত ছিল বার জন দুষ্কৃতি | তাঁরা ঘটনাস্থলে চারটি বাইকে আসে | অ্যাকশন করে তারা দ্রুত বাইকে করে চলে যায় | মধ্যমগ্রামের বিধায়ক রবিন ঘোষ সহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধীরা প্রকাশ্য দিবালোকে এই দুঃসাহসিক সশস্ত্র দুস্কৃতির তাণ্ডবে প্রচণ্ড ক্রুদ্ধ হয়েছেন বলে জানা গেছে | অন্যদিকে মধ্যমগ্রামের ঘটনা নিয়ে প্রশাষনের ব্যার্থতার সমালোচনায় সরব হয়েছেন সিপিএম , কংগ্রেস , ফরোয়ার্ড ব্লক , বিজেপি সহ বিভিন্ন বিরোধী রাজনৈতিক দল |

Share on Google Plus Share on Whatsapp



0 comments:

Post a comment