কর্নাটকে গুজরাট মডেলে প্রচার করবেন রাহুল গান্ধী

NNS :কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী সহ দলের শীর্ষ নেতারা কর্নাটকে বিজেপিকে পরাস্থ করে ক্ষমতা ধরে রাখতে বদ্ধপরিকর হয়ে উঠেছেন। কর্ণাটক প্রদেশ কংগ্রেস নেতারাও আত্মবিশ্বাসী যে, কনাটকে তথাকথিত. ছদ্মবেশী হিন্দুত্বের তেমন কোন প্রভাব পড়বে না আসন্ন বিধানসভা নিবার্চনে। কনাটকের ভোট প্রচারেও গুজরাতের মতোই পদ্ধতি অবলম্বন করতে চলেছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। ভোট প্রচারের মাঝে মন্দির।দরগাতেও যাবেন তিনি। 

ফেব্রুয়ারির ১০ থেকে ১৩ র মধ্যে উত্তর কর্নাটকের  বিভিন্ন জায়গায় প্রচার করবেন রাহুল গান্ধী। সুত্রের খবর অনুযায়ী, একটি মন্দির ছাড়াও, দুটি মঠ এবং একটি দরগায় যাওয়ার কথা রয়েছে কংগ্রেস সভাপতির। কংগ্রেস সুত্রে জানা গিয়েছে, প্রচার লিঙ্গায়েত কেন্দ্রিক হতে চলেছে। লিঙ্গায়েত শ্রেনির ভোটকে এবার টার্গেট  করেছে কংগ্রেস। সেই জন্যই উত্তর কর্ণাটক দিয়েই প্রচার শুরু করেছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। প্রথম দফার কর্ণাটক সফরের রাহুল প্রথমেই যাবেন, কোপ্পাল জেলার হুলিগাম্মা মন্দিরে। এরপরই তিনি যাবেন, গাভিসিদ্দাপ্পা মঠে। 

এরপর কংগ্রেস সভাপতির যাওয়ার কথা রয়েছে গুলবগার খাওয়াজা বন্ধে নাওয়াজ দরগায় গান্ধীর নরম হিন্দুত্বের পথে চলেছেন। যদিও কংগ্রেস তা অস্বীকার করেছে। তাঁদের মতে এটা নরম হিন্দুত্ব নয়। এটা অন্তর্ভুক্ত হিন্দুত্ব।কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী সিদ্ধি রামইয়া এক জাতীয় চ্যানেল সাক্ষাৎকার দিয়ে নরেন্দ্র মোদী অমিত শাহদের হিন্দুত্বকে ছদ্মবেশী হিন্দুত্ব বলে উপহাস করেছেন। কর্ণাটকে বিজেপির হিন্দু সস্ম্রাদায়িক রাজনীতি যে,কোন প্রভাব পড়বে না সে বিষয়ে নিশ্চিত কনাটক প্রদেশ কংগ্রেস নেতৃত্ব।

Share on Google Plus Share on Whatsapp



0 comments:

Post a comment