ব্যাঙ্ক জালিয়াতিতে সরকারি মদত ?


NNS :  প্রতি বছরই সংসদে পেশ করা সাধারণ বাজেটে ইউ পি এ হোক বা এন ডি এ সরকারের অর্থমন্ত্রীদের খরচ বরাদ্দ করার জন্য অর্থের জোগান কোথা থেকে আসবে যেমন মাথায় রাখতে হয় , তেমনি পাশাপাশি কর আদায়ের যে ঘাটতি রয়েছে তা ঢাকার চেষ্টা করতে হয় যাতে সামাজিক প্রকল্পগুলি ব্যাহত না হয় |
      সেজন্যই রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাংকগুলিকে  কেন্দ্ৰীয় সরকারকে  টাকার যোগান দিতে হয় | আর এর সুযোগেই রাষ্টায়ত্ব ব্যাংকগুলিতে  বাজে ঋণপ্রদান ও জালিয়াতির ঘটনা আগের চেয়ে  বেড়ে গেছে | গত ১১ বছরের ইউ পি এ এন ডি এ শাসনের পরিসংখ্যান ঘাটলে দেখা যাবে সব সরকারই  রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাঙ্ক ব্যাবস্থাকে মজবুত করতে গিয়ে প্রচুর সরকারি অর্থের জোগান দিয়েছেন | অথচ সেই অর্থ পেছনের দরজা দিয়ে প্রতারক ও জালিয়াতরা লুঠ করে নিয়েছে |                     আমাদের দেশে শেষ তিন অর্থমন্ত্রী প্রণব মুখোপাধ্যায় , পি চিদম্বরম , ও অরুণ জেটলিরা গত ১১ বছরের সরকারি পরিচালিত রাষ্ট্রায়ত্ব   ব্যাংকগুলিকে ২ লক্ষ ৬০ হাজার কোটি টাকা দিয়েছেন | এমনকি এবছরের বাজেটে গ্রামোন্নয়নের জন্য যে টাকা বরাদ্দ করেছেন তার চেয়েও রাষ্ট্রায়াত্ব ব্যাঙ্কে ঢালা টাকা এর চেয়েও দ্বিগুন বেশি |
             এবছরের শুরুর তিন মাসেই বাজারে আতঙ্ক ছড়িয়ে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া গত ১৮ বছরের মধ্যে প্রথম লোকসানের মুখ দেখেছে | অন্য রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাঙ্কগুলির অবস্থা আরও করুণ বলে ছবি উঠে এসেছে | একদিকে শেয়ার বাজারের ধাক্কা রাষ্ট্রায়াত্ব ব্যাঙ্কগুলির ওপর দারুন জোরে লেগেছে |
          তারপরে পিএনবি কেলেঙ্কারী, বাজে ঋণের ফলে আগামীদিনে ব্যাঙ্কিং ব্যাবস্থার ওপর যে , প্রবল চাপ আসছে তা বলাই বাহুল্য | এদিকে বিভিন্ন ব্যাঙ্ক থেকে কর্পোরেট জগৎকে দেওয়া ঋণ ফেরৎ না আসায় দেশের রাষ্ট্রায়াত্ব ব্যাঙ্ক শিল্প প্রবল সংকটের মধ্যে বলেই মনে করছেন ব্যাঙ্ক এমপ্লয়ীজ ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়া , অল ইন্ডিয়া ব্যাঙ্ক এমপ্লয়ীজ এসোসিয়েশন সহ বিভিন্ন ব্যাঙ্ক কর্মি ইউনিয়ন | এব্যপারে কংগ্রেস ও বামেরা যেমন সরব হয়েছেন , তেমনি আর এস এসের শ্রমিক সংগঠণ ভারতী মজদুর সংঘ সংগঠিত লুঠ নিয়ে যঠেষ্ট সরব হয়েছেন |
Share on Google Plus Share on Whatsapp



0 comments:

Post a comment