কর্তব্যরত উচ্চপদস্থ আইপিএস অফিসার ও তার পরিবারকে নিয়ে সামাজিক মাধ্যমে অন্ধভক্তদের জঘন্যতম কটুক্তি!!


Ronnie:Indiapost24 Web Desk:বর্তমান ভারতবর্ষের বিভিন্ন রাজ্য তথা সেই রামকৃষ্ণ-বিবেকানন্দ নজরুল-রবীন্দ্রনাথের বাংলায়ও  আবার হিন্দু-মুসলিম বিদ্বেষী মনোভাব নিয়ে চলছে কিছু  বিকৃত মস্তিষ্কের উগ্র সাম্প্রদায়িক মানুষজন, যারা প্রতিদিন সোশ্যাল মিডিয়াগুলি ব্যবহার করে সুস্থ ভাতৃত্বময় সমাজকে আমাদেরই অগোচরে প্রতিনিয়ত একটু একটু করে নিয়ে চলেছে সামাজিক অবক্ষয়ের পথে। তারই নিকৃষ্টতম উদাহরণ আরও একবার উঠে এল সাম্প্রতিক রাজ্যের এক বলিষ্ঠ আইপিএস উর্দ্ধতন পুলিশকর্তা ও তার পরিবারকে কেন্দ্র করে ফেসবুক পেজে বিভিন্ন আপত্তিজনক নক্কর পোস্ট ও জঘন্য কমেন্টস গুলির মাধ্যমে,যা  রীতিমত সুস্থ মস্তিষ্কের সাধারণ নাগরিক সমাজের কপালে ভাঁজ ফেলে দিচ্ছে বলে মনে করছেন আপামর বিশিষ্ট সমালোচকেরা।


সাম্প্রতিক রাজ্যের এই উচ্চপদস্থ আইপিএস অফিসার হুগলি জেলার চন্দননগর পুলিশ কমিশনারেট এর চিফ, পুলিশ কমিশনার হুমায়ুন কবীর ও তার পরিবারকে নিয়ে সরাসরি জাতপাত তুলে জঘন্যতম কটুক্তি করে সামাজিক মাধ্যমে খুব সহজেই হাসির পাত্র বানানো হচ্ছে। এই ঘটনা ইতিমধ্যে সুস্থ নাগরিক সমাজকে আবারও একবার চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিল সম্প্রীতির মিলনক্ষেত্র এই বাংলায় কিভাবে এরা সাম্প্রদায়িকতার বীজ বুনে চলেছে দেশের বিভিন্ন প্রান্তের ধর্ম কারিগরদের মদতে।

হয়তো ধর্মান্ধ পশুআত্মার এই সব অন্ধভক্তদের সঠিক রাস্তায় সহজে আনা না গেলেও, এদের এইসব  কুলষিত বিদ্বেষমূলক মনোভাবকে সর্ব সময়ে জনসমক্ষে অবগত করে ও কঠোরভাবে সমালোচনার ভিত্তিতে বাংলার যুবসমাজকে কিছুটা হলেও এর প্রভাব থেকে বাঁচিয়ে রাখার গুরু দায়িত্ব বর্তায় যে এই দায়িত্বশীল আপামর বাঙালীদেরই
পাশাপাশি আবার রাজ্য পুলিশ-প্রশাসনকেও কঠোর হস্তে এইসব মানবদেহী সাম্প্রদায়িক সমাজবিরোধীদের কে অতি শীঘ্রই চিহ্নিত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিয়ে অন্যদের কেও এর কুফল সম্পর্কে অবগত করা বিশেষ জরুরী বলে মনে করছেন সমাজের বিশিষ্ট মহলের মানুষজন।
Share on Google Plus Share on Whatsapp



0 comments:

Post a comment