অবৈধ প্রণয়ের জেরে আত্মহত্যা নাকি খুন?


স্নেহাশিষ মুখার্জি :অবৈধ প্রণয়ের জেরে এক রাজমিস্ত্রিকে গলায় বেল্টের ফাঁস দিয়ে হত্যার অভিযোগে শান্তিপুর থানা এক দম্পতিকে আটক করে | ঘটনাটি শান্তিপুর থানার অন্তৰ্গত ফুলিয়ার বেলঘরিয়া পঞ্চায়েতের ভাটা পাড়ার | এলাকার স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্য গনেশ রায় জানান "গতকাল রাতে কিছু যুবক মিলে ভাটাপাড়ার সমর বিশ্বাসের বাড়ীতে বসে মদ্য পান করছিল | কিছুক্ষন পরে ঐ বাড়ী থেকে চিৎকারের আওয়াজ শুনে আশেপাশের পূজামণ্ডপের লোকেরা ছুটে আসে | এবং সেখানে একটা বডিকে ঝুলতে দেখে পুলিশকে খবর দেয় এবং পুলিশ এসে বডি উদ্ধার করে শান্তিপুর থানায় নিয়ে যায় | মৃত ব্যাক্তির নাম ভিক্টর বিশ্বাস (২৭ )" |

স্থানীয় সূত্রে জানা জায় যে ঘরে নিজের বউ থাকা সত্বেও ভিক্টরকে প্রায়ই সমরের বাড়ীতে দেখা যেত | দীর্ঘদিন ধরে অবৈধ মেলামেশা ছিল তার সমরের বৌ শেফালির সংগে | গতকাল রাতেও মদের আসরে শেফালী উপস্থিত ছিল | একই সংগে তারা মদ ও খেয়েছিলো | এছাড়াও সোনা যায় ভিক্টরের নামে এর আগে বহু অভিযোগ আছে বিভিন্ন থানায় | ভিক্টরের বাবা ভবেন্দ্র নাথ বিশ্বাস বলে " এটা আত্মহত্যা নয় , এটা একটা চক্রান্ত | এখন থানার রিপোর্টের অপেক্ষায় আছি "|

অপরদিকে অনেকের মতামত অনুযায়ী এই ঘটনা পরস্পর জনিত বিরোধের জের ও হতে পারে |আবার বিশেষ সূত্রে জানা যাচ্ছে ,গতকাল দুপুর আনুমাণিক ১২ টা নাগাদ ফুলিয়া বাস স্ট্যান্ডের পাশে মৈত্রী হ্যান্ডলুম এর দোকান সংলগ্ন একটা ফাঁকা জমিতে ভিক্টর ও কয়েকজন মিলে মদ্যপান করছিল | সেখানে কিছুক্ষন পর মৈত্রী হ্যান্ডলুমের মালিক অঞ্জন ঘোষ উপস্থিত হলে তার সংগে ভিক্টরের বচসা হয় | আর সেটা জমি সংক্রান্ত বিষয় বলে জানা জাচ্ছে | এর আগেও একবার ভিক্টরের সংগে অঞ্জন ঘোষের গন্ডগোল হোয়েছিলো জমি সংক্রান্ত ব্যাপার নিয়ে | এটা তারই জের নয় তো ? তবে প্রশাসন প্ৰাথমিক তদন্তে জানাচ্ছে যে এটা একটা আত্মহত্যা ও বাকিটা তদন্ত সাপেক্ষ |
                                                                                                                                                                                Pic-Bappa Das


Share on Google Plus Share on Whatsapp



0 comments:

Post a comment