মিশে যাবে টাটা টেলিসার্ভিসেস ও ভারতী এয়ারটেল..




Debabrata Bhattacharjee : এয়ারটেলকে তাদের লোকসানে চলা টেলিকম ব্যবসা বিক্রি করে দিতে চলেছে টাটা গোষ্ঠী। দুই কোম্পানির মধ্যে চুক্তি হয়েছে কোনও নগদ লেনদেন ছাড়াই। তবে টাটা স্পেকট্রামের কিছুটা দায় নেবে ভারতী বলে খবর। চারমাস ধরে আলোচনার পরে এয়ারটেল টাটা টেলিসার্ভিসেস কিনে নিতে চলেছে।

বৃহস্পতিবারই টাটারা জানাল, আগামী দিনে তাদের মোবাইল পরিষেবা মিশে যাবে সুনীল ভারতী মিত্তলের সংস্থা এয়ারটেলের সঙ্গে।এই নিয়ে চুক্তি হয়েছে টাটা গোষ্ঠী ও ভারতী এয়ারটেলের। প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হলে টাটা টেলির হাতে থাকা স্পেকট্রাম ও ৪ কোটি মোবাইল গ্রাহক যাওয়ার কথা এয়ারটেলের।
তবে এন্টারপ্রাইজ (বিভিন্ন সংস্থাকে দেওয়া টেলি পরিষেবা), ফিক্সডলাইন, ব্রডব্যান্ড, টাওয়ার ও অপটিক ফাইবারের পরিকাঠামোর মতো ব্যবসা থাকছে টাটাদের হাতেই।এখন ১৯ সার্কেলে ১৮০ মেগাহার্জৎ–এর ৮০০, ১৮০০, ২১০০ এমএইচজেড (৩ জি এবং ৪ জি) ব্যবসা রয়েছে।

চুক্তি অনুযায়ী টাটাদের অপটিক্যাল ফাইবারের স্বত্বও ব্যবহার করতে পারবে এয়ারটেল।যে-সংস্থা প্রথম থ্রি-জি পরিষেবা এনেছিল, চালু করেছিল সেকেন্ড-পিছু কথা বলার খরচ, ১৪ হাজার কোটিতে যাদের ২৬% অংশীদারি কিনেছিল জাপানি বহুজাতিক ডোকোমো, সেই টাটা টেলি ব্যবসার মাঠ ছাড়ল কেন?

বিশেষজ্ঞদের মতে, শুরুতে সিডিএমএ ব্যবসায় সফল না-হওয়া, ক্রমশ প্রতিযোগিতায় পিছিয়ে পড়া, স্পেকট্রাম বিতর্কের আঁচ, বিপুল ধারের বোঝার মতো কারণে মোবাইল পরিষেবা গুটিয়ে দেওয়ার কথা অনেক দিনই ভাবতে শুরু করে টাটারা। মাঝে গাঁটছড়া ভাঙে ডোকোমোর সঙ্গেও।
এ দিনের ঘোষণা তাই একেবারেই অপ্রত্যাশিত ছিল না।বিশেজ্ঞরা বলছেন, দুই সংস্থা টেলি সার্ভিসেস ব্যবসার মাধ্যমে কাছে আসছে। ভবিষ্যতে ডিটিএইচ, বিদেশে কেবল এবং অন্যান্য ব্যবসা নিয়েও সমঝোতা করতে পারে তারা।
Share on Google Plus Share on Whatsapp



0 comments:

Post a comment