খাদিম কর্তা অপহরণ মামলার রায় দান করল আলিপুরের বিশেষ আদালত

Indiapost24 Desk: খাদিম কর্তা পার্থ রায় বর্মন  অপহরণ মামলায় বাকি ৮ জনকে দোষী  সাব্যস্ত  করল আলিপুরের বিশেষ আদালত। আগামী সোমবার এদের সাজা ঘোষণা করা হবে। শুক্রবার ৮ জনকে দোষী  ঘোষণা করেন আলিপুর বিশেষ আদালতের বিচারক অরুণ কিরণ বন্দ্যোপাধ্যায়। এদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১২০বি (অপরাধ মূলক ষড়যন্ত্র),৩৬৪এ(অবৈধ ভাবে আটকে রাখা) এবং ৩৪২ অপহরণের ধারা রুজু করা হয়েছে। প্রথম রায় ঘোষণা হয়েছিল ২০০৯ সালের ২১ মে। এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত পাচজনের যাবজ্জীবন সাজা হয়েছিল..এদিন যাদের  দোষী ঘোষণা করা হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে চার্জ  গঠণ হয়েছিল ২০১২ সালে । সাক্ষ্য গ্রহণ শুরু হয়েছিল ২০১৩ সাল থেকে। সাক্ষ্য নেওয়াছিল ১৬২ জনের আর দু’জন রাজ্সাক্ষীও আছে। কলকাতা হাইকোটের নির্দেশেই আলিপুর সংশোধনাগারেই বিশেষ আদালত বসেছিল। প্রথম ভাগেও এই বিশেষ আদালত থেকেই ২০০৯ সালের ২১ মে সাজা ঘোষণা করেছিলেন বিচারক বিশ্বরুপ ব্যানাজী।
উল্লেখ্য, ২০০১ সালের ২৩ জুলাই তিলজলার কারখানার কাছ থেকে খাদিম কর্তাকে  তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। তদন্ত করতে নেমে পুলিশ জানতে পেরেছিল, খাদিম কর্তাকে  উত্তর ২৪ পরগনা জেলায়, ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত লাগোয়া একটি জাগায় রাখা হয়েছিল। টানা আটদিন তাকে ধরে রেখে দেওয়া হয়েছিল। জানা গিয়েছে তাকে ছাড়ানোর জন্য ৩ কোটি ৭৫ লক্ষ টাকা মুক্তিপন হিসাবে দিতে হয়েছিল। 
দোষিরা একেএকে সবাই ধরা পড়লেও যথেষ্ট তথ্য প্রমাণ না থাকার জন্য এই মামলা থেকে ১৭ জনকে মুক্ত দিয়েছিল আদালত।প্রথম ভাগে যাদের সাজা হয়েছে তাদের ভিতরে অন্যতম আফতাব আনসারি।এছাড়াও আকিব আলি, সোকত আলি, হারপ্রিত ওরফে হ্যাপি সিং ও অন্যান্যরা ।


Share on Google Plus Share on Whatsapp



0 comments:

Post a comment