তবে কি সত্যিই উদীয়মান চীনের অৰ্থনীতি আমেরিকার জন্য হুমকি?

NNS:ডোলান্ড ট্র্যাম্পের আমলে মার্কিন প্রশাসনের কর্তারা বলেছেন উদীয়মান শক্তি চীনের প্রভাব প্রভাবিত করার জন্য ওয়াশিংটং নয়া নীতি গ্রহন করছে |আমেরিকা আত্মর্জাতিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে এশিয়ার দিকে বিশেষ করে চীনের দিকে গভীর মনোনিবেশ করবে |চীনের সঙ্গে তার দেশের সম্পর্ক জটিল উল্লেখ করে তা ঠিক করার ওপর জোর দেন |তাই মার্কিন প্রেসিডেণ্ট ডোল্যান্ড ট্রাম্প নয়া সামরিক নীতি গ্রহণ করেছেন.
এতে তিনি এশিয়ার দিকে ঝুকে পড়ার  কথা বলেছেন |এদিকে ইরাক থেকে মার্কিন সেনা ফিরে এসেছে,আফগানিস্তান যুদ্ধ তার ভাষায় প্রশমিত হয়ে এসেছে এবং আল-কায়দা নেতা ওসামা বিন লাদেনও নিহত হয়েছেন |কাজেই সময় এসেছে  উদীয়মান শক্তি চীনের দিকে মননিবেশ করার |
মার্কিন প্রতিরক্ষা সদর দপ্তর পেন্টাগন ৩ মাস আগে এক হিসেবে বলেছিলো যে গত বছর চীন সামরিক খাতে ১৮ হাজার কোটি ডলার অর্থ বায় করেছে |বেইজিং সামরিক খাতে অনেক কম অর্থ খরচ করার কথা স্বীকার করেছে |পেন্টাগণ এক প্রতিবেদন এ দাবি করেছে,চিন আমেরিকার বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক গুপ্তচরবৃত্তিও শুরু করেছে |আরো বলা হয়েছে,'চীন আমেরিকার প্রযুক্তিগত ও অর্থনৈতিক তথ্য সংগ্রহের চেষ্টাও করছে এবং এ বিষয়টি দেশের অর্থনৈতিক নিরাপত্তার জন্য ক্ৰমবৰ্ধমান হুঁমকি হয়ে উঠেছে" |

Share on Google Plus Share on Whatsapp



0 comments:

Post a comment