পদ্মশিবিরে নাম লেখাতে লিখিত আবেদন ভারতীর

পদ্মশিবিরে সক্রিয় ভাবে নাম লেখাতে এবার সরাসরি  লিখিত আবেদন জানিয়েছেন বিতর্কিত একদা দিদি ঘনিষ্ট আইপিএস অফিসার ভারতী ঘোষ । যা নিয়ে রাজ্য রাজনীতি ও আমলা মহলে ইতিমধ্যে তোলপাড় শুরু হয়ে গেছে। বিজেপি সূত্রে খবর, রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের কাছে গেরুয়া শিবিরে যোগদানের ইচ্ছাপ্রকাশ করে লিখিত আবেদন জমা দিয়েছেন ভারতী ঘোষ। পাশাপাশি মুকুল রায়কে দেওয়া চিঠিতেও একই ইচ্ছাপ্রকাশ করেছেন ভারতী। 
চলতি সপ্তাহেই পশ্চিম মেদিনীপুরের পুলিস সুপারের পদ থেকে ব্যারাকপুরের তৃতীয় ব্যাটেলিয়নে বদলি করা হয় ভারতী ঘোষকে। এরপরই রাজ্য পুলিসের ডিজি সুরজিৎ করপুরকায়স্থর কাছে ইস্তফাপত্র পাঠান তিনি। ইস্তফাপত্রের সঙ্গে তিন মাসের ছুটির আবেদনও জানিয়েছিলেন। যার কোনওটিই মঞ্জুর হয়নি। ইস্তফা ও ছুটি নামঞ্জুর হওয়ার পরেও নতুন পদে কাজে যোগ দেননি ভারতী। যা নিয়ে রীতিমতো ক্ষুদ্ধ ছিল নবান্ন। 
একসময় মুখ্যমন্ত্রীর ঘনিষ্ঠ ছিলেন ভারতী। কিন্তু সে সম্পর্ক আজ তলানিতে এসে ঠেকেছে। মুকুল রায়ের সঙ্গে অবশ্য ভারতী ঘোষের সুসম্পর্ক ছিল। তবে বিভিন্ন সময়ে তার বিরুদ্ধে উঠে আসা সমস্ত গুরুতর দুর্নীতির বিষয়গুলো  এবার  রাজ্য পুলিশ তদন্ত শুরু করছে পাশা পাশি ভিজিলেন্সও তাদের দপ্তরে আসা সব অভিযোগ গুলো  খতিয়ে দেখতে  চলেছে ফলত ভিজিলেন্স ক্লিয়ারেন্স ছাড়া ভারতী ঘোষ তার চাকরি জীবনে এর সমস্ত আর্থিক পাওনা পাবেন না বলেই মনে করছেন পর্যবেক্ষক মহল.
Share on Google Plus Share on Whatsapp



0 comments:

Post a comment