মাতোয়ালীর মাতব্বরিতে এবার হুমকির মুখে সাংবাদিকরাও !!!

অভিযোগকারীরা    
স্নেহাশিষ মুখার্জি :মুর্শিদাবাদের প্রাত্তন এমপি খুদাবক্স এর পুত্রদের বর্তমানে কয়েক কোটি টাকার ওয়াকফ আলাল আওলাদ স্টেটের সম্পত্তি থাকা সত্ত্বেও  তাদের মধ্যে কোনো এক পুত্রের "এক কাপ চা" খাওয়াতে গেলেও দুবার চিন্তা করতে হচ্ছে , ঠিক এমনই এক পরিস্থিতির স্বীকার হয়েছে মুর্শিদাবাদের বেলডাঙার ' হাজি ওয়াকফ স্টেটের ' বেনিফিসারীদের  মধ্যে একজন হলেন আবিদুর রহমান খুদাবক্স | কারন জানতে গিয়ে সাংবাদিকদের কাছে উঠে এল বর্তমান  মাতোয়ালির নিন্দার  কিছু কথা যা আমাদের ওয়েব মাধ্যমকে তাঁরা শেয়ার করেন অকপটে  | এমপি পুত্র আবিদুর রহমান খুদাবক্স আমাদের ওয়েব মাধ্যমকে জানান ১৯৩২ সালের ওয়াকফ ডিড অনুযায়ী ওয়াকফ সম্পত্তি মাতোয়ালি দ্বারা পরিচালিত হবে , বেনিফিসিয়ারদের বেনিফিটস অফ রাইটস পাবেন,পাশাপাশি রাজ্য সরকারকে এবং ওয়াকফ বোর্ডকে এর যে রেভিনিউ তা নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে জমা দেওয়ার কথা |


কিন্তু হাজি আতাউর রহমান খোদাবক্স মাতোয়ালি (প্রথম পক্ষ) হিসাবে হাজি মহম্মদ আয়ুব ওয়াকফ স্টেটের দায়িত্বে আসীন হবার পর থেকে বেনিফিসিয়ারীদের  সঙ্গে ক্রোমোশই সম্পর্কের অবনতি ঘটতে থাকে | কারণ হিসাবে   মোতওয়াল্লীর অধীনস্ত সম্পত্তির পরিচালনার ও উন্নতি সাধনের ক্ষেত্রে ও তার অধীনস্ত বেনিফিশিয়ারিদের মূল  দলিলের ভিত্তিতে কর্তব্য পালনে অকৃতকার্য হয়ে পড়েছেন বলে দাবি করে  সরাসরি  অভিযোগ করেন আবিদুর রহমান খুদাবক্স  ও অন্যান্য অভিযোগকারীরা | তিঁনি আমাদের আরও জানান যে  মাতোয়ালি র্তমান বাজার দর অনুযায়ী যে যে ঘর ভাড়া  পাচ্ছেন বা সেলামি নিচ্ছেন তার সঠিক প্রাপ্যও দেন না ,ওয়াকফ  ডিড অনুযায়ী হাজি মহম্মদ আয়ুব ওয়াকফ এ বিনামূল্যে দুঃস্থ ছাত্র ছাত্রীদের শিক্ষা দেওয়ার কথা উল্লেখ থাকা সত্বেও বর্তমানে প্রত্যেক ছাত্র ছাত্রীদের কাছে  অনৈতিক ভাবে ফীজ নিচ্ছেন বলে ও প্রশ্ন তুললেন অভিযোগকারীরা তার বিরুদ্ধে , এছাড়া ওয়াকফ সম্পত্তির মধ্যেই আশা প্রদীপ নামে একটি নার্সিং হোমকে লিজ দেওয়া হয়েছে কিন্তু যার কোনরকম বর্তমান বাজার মূল্য হিসাবে  টাকাপয়সা পাচ্ছেন না বলে অপারক হয়ে দিনের পর দিন বঞ্চিত হয়ে সমস্ত ক্ষোভ ও যন্ত্রণাকে জানিয়ে সরাসরি বহরমপুর  জেলাশাসকের অফিসে মাইনরিটি সেল, ওয়াকফ বোর্ডে ও জেলার পুলিশ সুপারের দ্বারস্থ হয়েছেন সুবিচারের আশায় |

এদিন আমাদেরকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে স্পষ্ট ভাবে হৃদরোগে আক্রান্ত প্রাক্তন এমপির কনিষ্ঠ পুত্র আবিদুর রহমান খুদাবক্স রাজ্যের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী ও ওয়াকফ বোর্ডের চেয়ারম্যানের কাছে  বর্তমান মাতোয়ালী আতাউর আহমান খুদাবক্স কে সরিয়ে সরকারি ভাবে রিসিভার নিয়োগের মাধ্যমে তাদের মতো অভাবী প্রাপকদের নেয্য প্রাপ্য পাইয়ে দেয়ার ক্ষেত্রে সরাসরি দৃষ্টি আকর্ষণ এর আবেদন জানান | আরও বলেন যে স্বয়ং রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যখন পিছিয়ে পড়া  সংখ্যালঘুদের উন্নতি সাধনে এরাজ্যে একসে এক জনহিতকর প্রকল্পের মাধ্যমে উন্নতি সাধনে ব্যাস্ত তখন এই ধরণের মাতোয়ালীদের দুর্নীতির ছায়াতে আজ দিনের পর দিন খোকলা হতে চলেছে রাজ্যের ওয়াকফ বোর্ড | আর যা খুব শীঘ্রই সংখ্যালঘুদের কাছে হতে চলছে প্রহসনের নামান্তর মাত্র |

অপরদিকে সমস্ত অভিযোগের সত্যতা সরজমিনে সরাসরি যাচাই করতে গেলে মাতোয়ালীর রোষ ও হুমকির মুখে পড়ে ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে স্থানীয় বেলডাঙা থানার পুলিশি সহযোগিতা নিতে বাধ্য হন আমাদের সাংবাদিকদের সঙ্গে অন্য গনমাধ্যমের কিছু সংবাদিকরাও | বেলডাঙা থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক সুমিত তালুকদারের তাৎক্ষণিক সহযোগিতায় সম্পন্ন হয় পুরো সাক্ষাৎকার পর্ব এবং উঠে আসে আরো অনেক চাঞ্চল্যকর তথ্য | আমাদের সংবাদ মাধ্যমকে মাতোয়ালি ফোনের মাধ্যমে হুঁমকি দেন "আপনারা কার আদেশে কিভাবে বিল্ডিঙ্গে প্রবেশ করেছেন ? বেরিয়ে আসুন , ফল কিন্তু ভাল হবে না " |

অভিযুক্ত মোতওয়াল্লী আতাউর আরমান খুদাবাক্স   
মাতোয়ালি সাহেব আপনি যথার্থই বলেছেন | আমরা সংবাদ মাধ্যম | আপনি যদি সংবাদ পড়েন বা দেখেন তাহলে আমাদের নাম অবশ্যই করবেন | কারণ আপনি আতাউর রহমান খুদাবাক্স মহাশয় আমাদের সঙ্গে আরো অনেক গণমাধ্যমের খবরের শিরোণামে থাকবেনই থাকবেন পাশাপাশি রাজ্যবাসীর কাছে নতুন পরিচিতিও লাভ করবেন | আর শুনে রাখুন আমরা হুমকিকে ভয় পাই না |  সত্যতা ও যথার্থতা  জেনে নির্ভীকভাবে মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে সহযোগিতা করার ধর্মই হলো আমাদের সাংবাদিকতা  !!! 
Share on Google Plus Share on Whatsapp



0 comments:

Post a comment