এবার মৌমাছি পালকদেরও পরিচয়পত্র দেবে মমতা সরকার

মৃত্যুঞ্জয় সরদার :এবার মৌমাছি পালকদের ত্রাতার ভুমিকায় অবতীর্ন হল রাজ্য সরকার। তাই রাজ্যের খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ দপ্তর ঠিক করেছে, কয়েক লক্ষ মৌমাছি পালককে সরকারি পরিচয়পত্র দেওয়া হবে। ইতিমধ্যেই জেলাশাসকদের মাধ্যমে মৌমাছি পালকদের নাম ঠিকানা সংগ্রহের কাজ শুরু হয়েছে। এই বছরের গোড়ায় পরিচয়পত্র বিলি করা হবে। 

মৌমাছি পালকদের ভাল দাম পাইয়ে দিতে বিপণন কৌশলেও এবার বদল আনছে দপ্তর। মৌমাছি পালকদের সম্পর্কে ভ্রান্ত ধারণা পাল্টাতে চাষিদের সচেতন করতেও শুরু হবে প্রচার। রাজ্যের উদ্যান ও খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ মুন্ত্রী বলেছেন, মধু উৎপাদনে দেশের মধ্যে প্রথম তিনে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ। অথচ মৌমাছি পালকদের কোনও স্বীকৃতিই নেই! তাই দেওয়া হবে পরিচয়পত্র, যা তাঁদের 'রক্ষাকবচ' হিসেবে কাজ করবে! সরকারি স্বীকৃতির পরে মৌমাছি পালকদের আধুনিক প্রশিক্ষণের পাশাপাশি উন্নত মানের বাক্স দেওয়া হবে বলে জানান দফতরের সচিব। 

বাংলার বিভিন্ন স্বাদের মধুর দেশজোড়া খ্যাতি রয়েছে। মূলত দুই ২৪ পরগনা, নদিয়া, মুর্শিদাবাদ,উত্তর দিনাজপুর, পুর্ব মেদিনীপুর, বাঁকুড়ার মতো কয়েকটি জেলায় মৌমাছি পালকদের বসে। সাধারণত রাতের বেলায় বাক্সবন্দি মৌমাছি নিয়ে এক জেলা থেকে আর এক জেলায় পৌঁছে যান পালকেরা। উইক্যালিপটাস,লিচু,সরষে ধনে,তিল,কালোজিরে ছাড়াও সুন্দরবনের মধুও সংগ্রহ করেন তারা ।
Share on Google Plus Share on Whatsapp



0 comments:

Post a comment