জ্ঞানযোগ শুধু শারীরিক সমস্যা নয়,দুশ্চিন্তা সহ মানসিক সমস্যা থেকেও মুক্তি দেয়

যোগ ব্যায়ামের কথা আমরা সকলেই জানি। প্রতিদিন যদি করা যায়, তাহল একাধিক শারীরিক নানা সমস্যা থেকে দূরে থাকা সম্ভব হয়। আর তার আগে  যদি জ্ঞানযোগ করতে পারেন, তাহলে তো কথাই নেই। বিশেষ ধরনের এই শরীরচর্চাটি করলে শুধুমাত্র শারীরিক সমস্যা নয়, দুশ্চিন্তা সহ একাধিক মানসিক সমস্যা থেকেও মুক্তি মেলে। মনে করা হয় যে, প্রায় এক হাজার বছর আগে থেকেই ভারতবর্ষের বুকে জ্ঞানযোগের অনুশীলন শুরু হয়েছে।পাশা পাশি  মানুষ এর দ্বারা উপকৃতও হচ্ছেন ।
বর্তমানে প্রত্যেকেই দুশ্চিন্তার শিকার। কোনও কোনও সময় দুশ্চিন্তা এমন পর্যায়ে চলে যায়, যখন সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগতে হয়, নিজেকে খুবই একা মনে হয়। এমন পরিস্থিতি থেকে নিষ্কৃতি পাওয়ার পথ অবশ্যই আছে। তা হল, জ্ঞানযোগ বা প্রাণায়াম। যোগের মাধ্যমে দুশ্চিন্তা দূর করার প্রথম এবং প্রধান শর্তই হল, নিজের চিন্তা এবং ব্যবহারের প্রতি লাগাম দেওয়া। কারণ, ক্রোধ এবং হীনন্মোন্যতা কখনই আমাদের সদর্থক জীবনযাপনে সহায়তা করে না। সবথেকে বড় কথা হল, জ্ঞানযোগ আমাদের শারীরিক ক্ষেত্র ছাড়িয়ে আরও দূর অবধি এগিয়ে নিয়ে যেতে সাহায্য করে।
যোগাসনের কয়েকটি নির্দিষ্ট পদ্ধতি আছে। তার মধ্যে একটি হল, আসন বা যোগ মুদ্রায় বসা। এতে মাংসপেশিতে সঠিক মাত্রায় টান পড়ে। দীর্ঘক্ষণ আসন মুদ্রায় বসে তারপর স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে এলে শরীর ভাল থাকে। এই পদ্ধতি অনুসরণ করলে দেহের ওজন সঠিক থাকে এবং শ্বাস প্রশ্বাস সঠিক পদ্ধতিতে হতে থাকে।
গবেষণায় দেখা গেছে জ্ঞানযোগের মধ্যমে খুব সহজেই মাংসপেশির স্থিতিস্থাপকতা বজায় রাখা সম্ভব হয়। তাই শারীরিক সচলতা বজায় রাখতে নিয়মিত জ্ঞানযোগ করার পরামর্শ দেন চিকিৎসকেরা।
শিরদাঁড়াতে কোনও সমস্যা থাকলে নিয়ম করে জ্ঞানযোগ অনুশীলন করুন। এতে শিরদাঁড়ার যে কোনও সমস্যা দূর হয়।
বর্তমানে লাখ লাখ মানুষ জ্ঞানযোগের মাধ্যমে উপকৃত হয়ে চলেছেন। প্রতিদিন প্রাণায়াম অনুশীলন করলে নানারকমভাবে উপকার পাওয়া যায়। যেমন-দুশ্চিন্তা দূর হয়,শারীরিক নানা সমস্যা থেকে মুক্তি মেলে, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়, হ্রদরোগের সম্ভাবনা কমে, মাংসপেশির স্থিতিস্থাপকতা বৃদ্ধি পায়,কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা দূর করে, ধৈর্যক্ষমতা বৃদ্ধি করে, মনে শান্তি এবং স্নিগ্ধতা বজায় থাকে প্রভৃতি।
Share on Google Plus Share on Whatsapp



0 comments:

Post a comment