জোর ধাক্কা!! ব্যারাকপুরে বিজেপিতে বড় ভাঙ্গন ঘটালেন যুবরাজ


স্নেহাশিষ মুখার্জি :নোয়াপাড়ার বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচনের ঠিক চারদিন আগে তৃণমূল কংগ্রেসের রাজনৈতিক কৌশলবিদরা গেরুয়া শিবিরের ব্যারাকপুর সাংগাঠনিক জেলায় বড় ধরণের ভাঙ্গন ঘটালেন | বীজপুর বিধানসভা কেন্দ্রে বিগত বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি প্রার্থী আলোরানী সরকার সহ ব্যারাকপুর সাংগঠনিক জেলার ১৫ জন গুরুত্বপুর্ণ নেতা সহ প্রায় ১৫০০ বিজেপি কৰ্মী আজ দল ত্যাগ করে যুব তৃণমূল সভাপতি তথা সাংসদ অভিষেকের হাত ধরে তৃনমূল কংগ্রেসে যোগদান করেন যা পদ্দ শিবিরে এক বড়ো ধাক্কা বলে মনে করছেন রাজনৈতিক সচেতন মানুষজনের | তৃণমূল বহিষ্কৃত ও বর্তমান বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের মত রাজনৈতিক বিতর্কিত ব্যাক্তিত্ত্বকে গেরুয়া শিবির নেতা করার প্রতিবাদ জানিয়েই এই দলত্যাগ বলে জানিয়েছেন আলোরানী সরকার | 

আজ নোয়াপাড়া বিধানসভা কেন্দ্রে নির্বাচনী প্রচারে গিয়েছিলেন তৃনমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় | তাঁর রোড শো এর মধ্যে বিজেপি কর্মীরা মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করে তৃনমূলের পতাকা ধরলেন   | জানা গেছে যে এব্যাপারে আলোরানী সরকার জানান মুকুল রায় এর বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করে আগেই সমস্ত বিজেপির পদ তিঁনি ত্যাগ করেছিলেন | মুকুল রায় যে  দলে রয়েছেন সেই দলের মঞ্চ শেয়ার করার মানসিকতা যে তাঁর নেই সে কথাও কবুল করেন আলোরানী সরকার | দল নয় আমার কাছে নৈতিকতা ও আদর্শই বড় ব্যাপার , বীজপুর বাসীর কাছে আমি দায়বদ্ধ | 

এদিনের বিজেপি ত্যাগী ব্যারাকপুর সাংগঠনিক জেলার একাধিক নেতা দাবী তোলেন যে  মুকুল রায়ের রাজনৈতিক গুরু আবু সিংহ রায়ের পথ দুর্ঘটনায় রহস্য জনক মৃত্যু নিয়ে অবিলম্বে তদন্ত শুরু করুক রাজ্যের পুলিশ প্রশাসন | আবু সিংহ রায়কে মৃত্যুর মুখে কারা ঠেলে দিয়েছে তা তদন্তে বেরিয়ে আসুক | একই সঙ্গে বিজেপি ত্যাগী নেতাদের অভিযোগ যে মুকুল রায়ের মত বিতর্কিত মানুষকে দলে নেওয়ার পর তাঁকে সাংসদ করে মন্ত্রী করা হচ্ছে বলে যে  জল্পনা তৈরি হয়েছে তা নিয়েও প্রকাশ্যে মুখ খুলুক নরেন্দ্র মোদী , অমিত শাহরা এমন দাবিও তাঁরা তুলে ধরেছেন জন সমক্ষে | এদিকে রাজ্য বিজেপির নেতৃত্ব ব্যারাকপুরে কিছু দলীয় কর্মীর দলত্যাগের ঘটনাকে গুরুত্ব দিতে রাজি হননি.. |
Share on Google Plus Share on Whatsapp



0 comments:

Post a comment