রোগ প্রতিরোধে চিরতা !!!


Indiapost24 Web Desk: চিরতার স্বাদ তেতো হলেও এই ফলটির রয়েছে নানান গুণ। চিরতার  ডাল পালা ধুয়ে  পরিষ্কার করে গ্লাস বা  বাটিতে সারারাত জলে ভিজিয়ে রেখে সকালে ওই জল পান করলে অনেক উপকার পাওয়া যায়। চিরতার উপকারিতা ও গুনাগুন সম্পর্কে আরো বিস্তারিত ভাবে আলোচনা করা হলো- 
শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তোলে।
নিয়মিত তেতো খাবার খেলে অসুখ হওয়ার প্রবণতা কম থাকে। চিরতা এর মধ্যে অন্যতম।
চিরতা খেলে যেকোনো কাটা, ছেড়া, ক্ষতস্থান দ্রুত শুকায়।
ডাইবেটিসের রোগীদের জন্য চিরতা ভীষণ জরুরি পথ্য। চিরতার রস দ্রুত রক্তে চিনি কমিয়ে দেয়।
উচ্চমাত্রায় কোলেস্টেরল, উচ্চ রক্তচাপ, অতি ওজন বিশিষ্ট ব্যক্তির জন্য ও চিরতা দরকারি।
 টাইফয়েড  জর হবার পর আবারো অনেকের প্যারা টাইফয়েড জ্বর হয়। তাই টাইফয়েড জ্বরের পরে চিরতার রস  খেলে যথেষ্ট উপকার পাওয়া যায়।
চিরতার রস কৃমিনাশক।
তারুণ্য ধরে রাখতেও চিরতার গুরুত্ব অপরিসীম।
শরীরের  ঝিমুনি ভাব, জ্বর জ্বর লাগা দূর করে চিরতার রস।
নিয়মিত  তেতো বা চিরতার রস খেলে ফুড পয়েজনিং হওয়ার আশঙ্কা কম থাকে।
চিরতা রক্ত পরিষ্কারক হিসেবে কাজ করে।
Share on Google Plus Share on Whatsapp



0 comments:

Post a comment