নরেন্দ্র মোদিকে খোঁচা দিয়ে রিপোর্ট মার্কিন প্রশাসনের !!!


NNS : ভারত মার্কিন দ্বি-পাক্ষিক বাণিজ্যে গত বছরের প্রথম তিন মাসে ঘাটতি ছিল ২০১৬ সালের আর্থিক বছরের তুলনায় | এবার সেইজন্য মার্কিন প্রশাসনের শীর্ষ কর্তারা নরেন্দ্র মোদি সরকারের নোট বাতিল কাণ্ড ও জি এস টির মত আর্থিক সংস্কারকেই প্রধান কারন হিসাবে মনে করছেন | মার্কিন প্রশাসনের রিপোর্টে বলা হয়েছে যে ভারতে পরিকাঠামোগত সংস্কারের কারণেই ভারতের বৃদ্ধি থমকে গিয়েছে |
       মার্কিন প্রশাসনের ইকোনোমিক রিপোর্ট অব দ্যা প্রেসিডেণ্ট অবশ্য মার্কিন মুলুকে বৃদ্ধি নিয়ে আশার বানী শুনিয়েছেন | একই সঙ্গে বাণিজ্য ক্ষেত্রে ভারতের রক্ষনশীল মনোভাবকে সমালোচনা করেছে মার্কিন প্রশাসন | ভারতের বৃদ্ধি নিয়ে মার্কিন প্রশাসনের এই গুরুত্বপূর্ণ রিপোর্টে বলা হয়েছে যে ২০১৬ সালে নভেম্বর মাসে নরেন্দ্র মোদির প্রশাসন দেশের নোটের ৮৬ শতাংশকে বাতিল করেন | যেখানে ভারতে ৯০ শতাংশ লেনদেন হয় নগদ টাকায় | 
         এরই পাশাপাশি ২০১৭ সালে জুলাই মাসে নরেন্দ্র মোদি প্রশাসন এক দেশ এক কর বা পণ্য - পরিষেবা কর চালু করে | যা বিভিন্ন রাজ্যগুলির কর ব্যাবস্থার সরলীকরণ করেছে | যার ফলে ভারতীয় বাজারে অচলাবস্থা ও অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে | 
        এছাড়াও মার্কিন প্রশাসনের এই গুরুত্বপুর্ণ রিপোর্টে বলা হয়েছে যে , ভারতের ব্যাঙ্ক গুলিতে বাজে ঋনের পরিমান বেড়েছে | ২০০৭ সাল থেকে ভারত মার্কিন বিভিন্ন কৃষিজ পণ্য , পোল্ট্রির মাংস , ডিম , শুয়োরের মাংস আমদানি বন্ধ রেখেছে যাতে  এডিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জা ভারতে প্রবেশ করতে না পারে | মার্কিন প্রশাসনের রিপোর্টে বলা হয়েছে যে এই নিষেধাজ্ঞার কোন বৈজ্ঞানিক ভিত্তি নেই | তাছাড়াও আমদানি কৃত মার্কিন সামগ্রীর উপর অত্যাধিক আমদানী কর আরোপেরও মৃদু সমালোচনা করা হয়েছে |
       ডোনাল্ড ট্রাম্প মার্কিন রাষ্ট্রপতি হবার পর নরেন্দ্র মোদিকে বন্ধু বললেও মার্কিন প্রশাসন কিন্তু ভারত সরকারের বিভিন্ন আর্থিক নীতি নিয়ে খোঁচা দেওয়ায় দেশে রাজনৈতিক মহলে যঠেষ্ট চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে |
Share on Google Plus Share on Whatsapp



0 comments:

Post a comment