মদ খাওয়ার প্রতিবাদে বেধড়ক মারধর !!!


স্নেহাশিষ মুখার্জি: 

মদ খাওয়াকে কেন্দ্র করে শুক্রবার নদিয়ার শান্তিপুরের সাহেবডাঙ্গা পাড়ার কয়েক জন যুবক পাশের বৈষ্ণব পাড়ায় চন্ডী করের বাড়ীর সামনে বসে মদপ্য অবস্থায়  নিজেদের মধ্যে  গালিগালাজ করলে চন্ডি কর  প্রতিবাদ করায় চলে গালিগালাজ বেধড়ক মারধর |
অভিযোগ সাহেবডাঙ্গার শিব নন্দী , ও নিমাই প্রামানিক প্রতিদিনই নতুন নতুন কিছু ছেলে নিয়ে চণ্ডী করের বাড়ীর সামনে মদের আসর বসায় |  সকাল , দুপুর , সন্ধ্যে , কি বা রাত্রী মদ খাওয়ার খামতি শিব , নিমাইদের কোন দিনই নেই | এদিনও ওরা মদ খাচ্ছিলো | নিজেদের মধ্যে চলছিল গালিগালাজ | অভিযুক্তদের বাড় বাড়ন্তকে আর প্রশ্রয় দেবে না বলেই চন্ডি কর "বাড়ীতে মহিলারা আছে , গালিগালাজ না করে তোরা এখান থেকে চলে যা "বলে প্রতিবাদ করলে অভিযুক্তরা চন্ডি করকে লোহার রড দিয়ে বুকে , পিঠে , মাথায় আঘাত করে | 
  
পরে আরও ৩০ -৩৫ জন ছেলেদের নিয়ে অভিযুক্তরা চণ্ডী করের বাড়ীতে চড়াও হোয়ে চণ্ডী করের হাতে ধারাল অস্ত্র দিয়ে কোপ মারলে চণ্ডী করের হাত থেকে রক্ত ঝরতে থাকে | চণ্ডী করকে বাঁচাতে গেলে চন্ডিকরের ছোট ভাই প্রদীপ কর , ও বড় ভাই সাধন করকেও তাদের রোষের মুখে পরতে হয় | বাঁশ , পাওয়ার লুমের রড নিয়ে অভিযুক্তরা ঝাঁপিয়ে পরে হাতে মাথায় চোখে লোহার রড দিয়ে আঘাত করে | লোহার রডের আঘাতে প্রদীপ করের একটা হাত ভেঙ্গে যায় | সাধন করকে আশঙ্কা জনক অবস্থায় কল্যাণী জহরলাল নেহেরুতে ভর্তি করা হয় | 

পরিবার সূত্রে জানা যায় তার একটা চোখ মারাত্মকভাবে জখম হয়েছে | বাড়ীর মহিলা সহ ছয় বছরের কিডনি সংক্রান্ত রোগে আক্রান্ত অর্পিতা কর ও বাধ যায় না মারধরের হাত থেকে এই মর্মে শান্তিপুর থানায় অভিযোগ করলে  থানা সূত্রে খবর এই ঘটনায় শান্তিপুর থানা দুজনকে গ্রেপ্তার করে | জিজ্ঞাসাবাদ চলছে | খুব শীঘ্রই বাকি অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করা হবে |
Share on Google Plus Share on Whatsapp



0 comments:

Post a comment